মেনু বন্ধ করুন

পড়া মনে রাখার কয়েকটি সহজ কৌশল(পড়ুন আর মনে রাখুন)

পড়া মনে রাখার কয়েকটি সহজ কৌশল(পড়ুন আর মনে রাখুন)

পড়া মনে রাখার কয়েকটি সহজ কৌশল(পড়ুন আর মনে রাখুন)। অনেকেরই অভিযোগ যতই পড়ছি ততই ভুলে যাচ্ছি। পড়া মনে থাকে না  অথবা যা পড়ি তা-ই ভুলে যাই। পড়া মনে না থাকা নিয়ে কম-বেশি হতাশায় ভুগে নি এমন মানুষকে খুঁজে পাওয়া  মুশকিল।আজকের আলোচনা সে সকল শিক্ষার্থীদের নিয়ে।তাহলে চলো দেখি।

পড়া মনে রাখার কয়েকটি সহজ কৌশল(পড়ুন আর মনে রাখুন)

পড়া মনে রাখার কয়েকটি সহজ কৌশল(পড়ুন আর মনে রাখুন)। পড়া মনে থাকে না,সব ভুলে গেছি। এ বিষয়টি নিয়ে হতাশ হলে চলবে না। সহজ কয়েকটি কৌশল মেনে চললেই  মুক্তি পাওয়া সম্ভব এ জাতীয় ঝামেলা থেকে।মনে রাখতে হবে এটা নিয়ে হতাশায় ভুগলে চলবে না। পড়া মনে রাখার কৌশলগুলো জেনে নেই।আশা করা যায় কিছুটা হলেও লাভবান হবেন।

পড়ার টেবিলে বসার আগে ১০ মিনিট হাটাঃ

অনেকেই আছেন যে টেবিলে বসে পড়তে পারেন না। টেবিলে বসার পূর্বে ১০ মিনিট হাঁটলে বা হালকা ব্যায়াম করে নিবেন।করলে মস্তিষ্কের ধারণ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। গবেষণায় বলে, পড়ার পূর্বে ১০ মিনিট হাঁটলে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা প্রায় ১০ শতাংশ পরিমাণ বেড়ে যায়।  এতে পড়া মনে রাখার ক্ষেত্রে সুবিধা হবে।

মার্কার পেন দিয়ে দাগিয়ে পড়াঃ

অনেকেই বই এ মার্ক করে বা দাগিয়ে পড়ে। এর ফলে কোন শব্দ বা বাক্যের প্রতি আকর্ষণ  বেড়ে যায়। ব্রেইনের ভিজ্যুয়ালিটি ইফেক্ট এর ফলে বেড়ে যায়। যা সহায়তা করে পড়াকে মনে রাখতে।

চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের  গবেষণায়,

মানুষ কোন কিছুর প্রতি আকর্ষণ অনুভব করলে তা সহজেই মস্তিষ্কে মেমরি তে রূপান্তরিত হয়ে যায়। এবং তা স্মৃতিতে দীর্ঘস্থায়ী হয়।

লিখে বা ছবি একে পড়া

নিউরো সায়েন্সের মতে,

কিছু লিখলে বা ছবি আঁকলে ব্রেইনের অধিকাংশ জায়গা উদ্দীপিত হয়।ছবি বা লেখাটিকে স্থায়ী মেমরিতে রূপান্তরিত করে ফেলে। ফলে সেটা দীর্ঘস্থায়ী হয়।

বেশি বেশি অনুশীলন করা

ব্রেইন ক্ষণস্থায়ী স্মৃতি গুলোকে তখনই দীর্ঘস্থায়ী স্মৃতিতে পরিণত করে যখন তা বারবার উচ্চারন করা হয়।তাই বেশি বেশি পড়তে হবে আর অনুশীলন করতে হবে।

পড়া মনে রাখার আরো কয়েকটি কৌশল

পড়া মনে রাখার কয়েকটি সহজ কৌশল(পড়ুন আর মনে রাখুন) ।দেখেনিন আরো কয়েকটি-

  • কোন কোন বিষয় পড়বেন তা কয়েকটি অংশে ভাগ করে নিতে হবে।
  • পড়ার জন্য সঠিক সময় নির্বাচন করতে হবে।
  • ব্রেইন অগোছালো জিনিস মনে রাখতে পারে না।তাই গুছিয়ে পড়তে হবে।
  • পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুমাতে হবে।
  • যা নিজে শিখলাম তা অপরকে শিক্ষা দিতে হবে।

আশা করা যায় এই জিনিসগুলো লক্ষ্য রেখে পড়লে পড়া মনে থাকবে। পড়া মনে রাখার জন্য একটু খেয়াল করে পড়লেই হবে।

আমাদের সোশাল মিডিয়াগুলোতে লাইক,কমেন্ট এবং শেয়ার করুন। বিভিন্ন জিনিসের আরো সহজ টেকনিক আপনাদের জানাবো ।ধন্যবাদ সবাইকে।

মন্তব্য করুন

%d bloggers like this: